Home অপরাধ

অপরাধ

ডিবি কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে সাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফকে

রাজধানী বনানীর রেইনট্রি হোটেলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার সাফাত আহমেদের সঙ্গে বাংলাদেশের সিনেমা জগতের ৪ জন নায়িকার সঙ্গে নিয়মিত অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। যাদের সঙ্গে অর্থের বিনিময়ে তিনি অনৈতিকভাবে মেলামেশা করতেন। এছাড়া প্রায় এক ডজন বান্ধবীর নাম ফাঁস করেছেন, যাদের সঙ্গে তার শারীরিক সম্পর্কের কথাও খোলামেলা স্বীকার করেছেন। এ সব বান্ধবীদের মধ্যে উঠতি কয়েকজন মডেলও রয়েছেন। রিমান্ডের প্রথম …

বিস্তারিত ...

ছেলের অপকর্ম নিয়ে মুখ খুললেন সাফাতের মা নিলুফার জেসমিন

ছেলের অপকর্ম নিয়ে মুখ খুললেন বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণে অভিযুক্ত সাফাতের মা নিলুফার জেসমিন। তিনি বলেন, বাবার লাই পেয়েই ছেলের আজ এই অবস্থা। বাবাই ছেলেকে অসৎ কাজে উৎসাহ দিয়েছেন। নির্যাতিত দুই তরুণীর সঙ্গে যা হয়েছে তা সত্য হলে এটি অন্যায় বলেও অভিমত দেন তিনি। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, এত টাকা আর প্রাচুর্য চারিদিকে কিন্তু মনে শান্তি নেই। রাস্তার কুকুর থেকে …

বিস্তারিত ...

ছেলের জন্য মদ ও নারীর ব্যবস্থা করে দিতেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিম

নারী ও মদে ডুবে থাকতো সাফাত আহমেদ, নাঈম আশরাফরা। দেশে-বিদেশে ছিল তাদের বেপরোয়া বিচরণ। সন্ধ্যার পরপরই জমতো তাদের পার্টি। পার্টিতে থাকতো বিদেশি মদ, ইয়াবা ও সুন্দরী মডেলরা। পার্টিতে অংশ নিতো নাঈম, দুই এমপি পুত্র ছাড়াও সাফাতের কয়েক ঘনিষ্ঠ বন্ধু। পার্টি চলতো গভীর রাত পর্যন্ত। কখনও কখনও পরদিন ভোরে শেষ হতো এসব পার্টি। প্রথম সারির সুন্দরী মডেল-আইটেম গার্লরা তাদের রাতের সঙ্গী …

বিস্তারিত ...

আমিও তো অনেক জায়গায় আকাম করি-আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিম

‘আরে মিয়া, আমার পোলা আকাম (ধর্ষণ) করছে তো কি হইছে। জোয়ান পোলা একটু-আধটু তো এসব করবই। আমিও তো করি। আমার যৌবন কি শেষ হয়ে গেছে? আমি এখনও বুড়া হইনি।’ ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা হওয়ার পর ছেলের অপকর্মে সমর্থন দিয়ে এসব কথা বলেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিম। রাজধানীর বারিধারা আবাসিক এলাকায় আপন জুয়েলার্সের অফিসে এসব কথা বলেন তিনি। এ …

বিস্তারিত ...

চাঞ্চল্যকর সাতখুনের মামলায় সময় দেয়া যাবে না: হাইকোর্ট

নারায়ণগঞ্জের সাতখুনের মামলাগুলো ‘সেনসেশনাল মামলা’। এগুলোতে সময় দেয়া যাবে না। আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি জাঙ্গাহীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের ডিভিশন বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন। এর আগে সাতখুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামিদের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত কৌসুলী নিয়োগের বিষয়ে আদেশের জন্য দিন ধার্য ছিল। আদেশ দেয়ার পূর্বে জামাল উদ্দিন নামে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামির আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক আদালতকে বলেন, জামাল উদ্দিন রায় …

বিস্তারিত ...